সোলার প্যানেল এর দাম ২০২২

সোলার প্যানেল এর দাম ২০২১

3.8/5 - (9 votes)

নমস্কার বন্ধুরা আজকে আমি আপনাদের জানিয়ে দেবো বর্তমান বাংলাদেশের সোলার প্যানেলের দাম কত করে চলছে। সোলার প্যানেলের মাধ্যমে যদি বিদ্যুৎ তৈরি করে চালানো যায় তাহলে আপনি বিদ্যুৎ শক্তি ব্যবহারের দিক থেকে পুরোপুরিভাবে ই সেলফ ডিপেন্ডেন্ট থাকতে পারবেন এবং আপনাকে মাসি মাসে ইলেকট্রিকের বিল গুনতে হবে না। এছাড়াও আপনি প্রচুর টাকা সেভ করতে পারবেন। তাই বন্ধুরা বর্তমানে প্রচুর মানুষ নিজেদের বাড়িতে সোলার প্যানেলের ব্যবহার করে থাকে, শুধুমাত্র পয়সা যে বাঁচে তাই নয়, বিদ্যুৎ শক্তি ব্যবহারের দিক থেকে সে নিজে স্বনির্ভরও বটে। তাহলে চলুন বন্ধুরা জেনে নেই কিভাবে এই সোলার প্যানেল প্রযুক্তি কাজ করে থাকে এই প্রযুক্তির ইতিহাস এবং এর সাথে এই প্রযুক্তি ব্যবহারের সুবিধা।

সৌরশক্তিতে আমরা সূর্য থেকে যে আলো পাই সেই আলোকে আমরা শক্তিতে রূপান্তর করি। যা “ফোটান” নামক শক্তির কণার সমন্বয়ে গঠিত হয়। সোলার প্যানেল গুল ির কেবিনের জন্য দূরবর্তী পাওয়ার সিস্টেম টেলিকমিউনিকেশন সরঞ্জাম, রিমোট সেন্সিং এবং অবশ্যই আবাসিক এবং বাণিজ্যিক সৌর বৈদ্যুতিক সিস্টেম দ্বারা বিদ্যুৎ উৎপাদন সহ বিভিন্ন ধরনের অ্যাপ্লিকেশনের জন্য ব্যবহার করা যেতে পারে।

সোলার প্যানেল এর দাম ২০২১
সোলার প্যানেল মডেলবাংলাদেশে দাম
বাণিজ্যিক 1KW সোলার পাওয়ার প্ল্যান্ট৳ ৮০,০০০
গ্রিড সোলার পাওয়ার প্ল্যান্টে বাণিজ্যিক 10KW৳ ৮০০,০০০
বাণিজ্যিক 6KW সোলার পাওয়ার প্ল্যান্ট৳ ৪৮০,০০০
বাণিজ্যিক 15KW সোলার পাওয়ার প্ল্যান্ট৳ ১,২০০,০০০
বাণিজ্যিক 8KW সোলার পাওয়ার প্ল্যান্ট৳ ৬৪০,০০০
বাণিজ্যিক 4KW সোলার পাওয়ার সিস্টেম৳ ৩০০,০০০
সোলার পাওয়ার সিস্টেম 1KW৳ ১০০,০০০
টোএনার্জি 290W সোলার প্যানেল৳ ৮,৫০০
বাণিজ্যিক 5KW সোলার পাওয়ার প্ল্যান্ট৳ ৪০০,০০০
বাণিজ্যিক 3KW অন-গ্রিড সোলার পাওয়ার সিস্টেম৳ ২৪০,০০০
সোলার প্যানেল এর দাম ২০২২।
সোলার প্যানেল এর দাম ২০২১
সোলার প্যানেল এর দাম ২০২১
সোলার প্যানেলের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস

সৌর শক্তির বিকাশের কথা বলতে গেলে ১০০ বছরেরও বেশি সময় আগে চলে যেতে হয়। প্রাথমিক দিনগুলিতে সৌরশক্তি প্রাথমিকভাবে বাষ্প উৎপাদনের জন্য ব্যবহৃত হতো যা পড়ে পড়ে যন্ত্রপাতি চালানোর জন্য ব্যবহার করা হত। কিন্তু এডমন্ড বেকারেলের ফটোভোলটাইক প্রভাব আবিষ্কার এর আগে পর্যন্ত সৌরশক্তিকে বৈদ্যুতিক শক্তিতে রূপান্তরের ব্যবহার জানতো না মানুষ। বেকারেলের আবিষ্কার কে ১৮৯৩ সালে চার্লস ফ্রিটস দ্বারা প্রথম প্রকৃত সৌর কোষের আবিষ্কারের দিকে চালিত করে, যা সোনার পাতলা স্তর দিয়ে সেলেনিয়ামের আবরণ দ্বারা গঠিত ছিল। আর এই বিনীত শুরু থেকেই উদ্বুদ্ধ হওয়া ডিভাইস টিকে আমরা আজ সোলার প্যানেল নামে চিনি।

সোলার প্যানেল কিভাবে কাজ করে

সোলার প্যানেলগুলি ডাইরেক্ট সূর্য থেকে নির্গত হওয়া সূর্যালোক সংগ্রহ করে এবং তা শক্তিতে রূপান্তরিত করে এবং তারপর সেই শক্তিকে বিদ্যুৎ শক্তিতে রূপান্তরিত করে বৈদ্যুতিক লোডের জন্য শক্তি সরবরাহ করতে ব্যবহার করা হয়। সৌর প্যানেলগুলি বেশ কয়েকটি পৃথক সৌর কোষের সমন্বয়ে গঠিত যা নিজেই সিলিকন ফসফরাস এবং বোরন এর দ্বারা গঠিত হয়। সৌর প্যানেলগুলি ফোটন গুলিকে শোষণ করে এবং এটি করতে গিয়ে বৈদ্যুতিক প্রবাহ শুরু করে। সৌর প্যানেলেরপৃষ্ঠ ে আঘাতকারী ফোটন থেকে উৎপন্ন শক্তি ইলেকট্রনগুলিকে তাদের পারমাণবিক কক্ষপথ থেকে ছিটকে যেতে দেয়। এবং সৌর কোষ দ্বারা উৎপন্ন বৈদ্যুতিক ক্ষেত্রে ছেড়ে দেয় যা এই মুক্ত ইলেকট্রন গুলিকে একটি দিকনির্দেশক প্রবাহে টেনে নিয়ে যায়। এই পুরো প্রক্রিয়াটি ফটোভোলটাইক প্রভাব নামে পরিচিত। একটি সু ভারসাম্যপূর্ণ গ্রিড সংযুক্ত কনফিগারেশনে একটি সৌর ্্ অ্যারে দিনের বেলায় শক্তি উৎপন্ন করে যা রাতে বাড়িতে ব্যবহার করা হয়।

সাধারণত এই ক্ষেত্রে একটি ব্যাটারি ব্যাঙ্ক, চার্জ কন্ট্রোলার এবং বেশিরভাগ ক্ষেত্রে একটি বৈদ্যুতিক সংকেতের মেরু বদল কারি প্রয়োজনীয় উপাদান ব্যবহার করা হয়। সোলার অ্যারে চার্জ কন্ট্রোলার এর মাধ্যমে ব্যাটারি ব্যাঙ্কে সরাসরি ডিসি কারেন্ট বিদ্যুৎ সরবরাহ করে। তারপর শক্তিটি ব্যাটারি ব্যাঙ্ক থেকে ইনভার্টারের টানা হয়। যা ডিসি কারেন্টকে অর্থাৎ ডাইরেক্ট কারেন্টকে এসি কারেন্ট অর্থাৎ অল্টারনেটিভ কারেন্টে রূপান্তর করে। যা বিভিন্ন ধরনের নন ডিসি যন্ত্রপাতির জন্য এবং বৈদ্যুতিক লাইট জ্বালানোর জন্য ব্যবহার করা যেতে পারে। এই এসি কারেন্ট বাড়ি ,বাণিজ্যিক ভবন, বিনোদনমূলক যানবাহন, দূরবর্তী কেবিন ,কটেজ বা বাড়ি,দূরবর্তী ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণ, টেলিযোগাযোগ সরঞ্জাম ,তেল ও গ্যাস প্রবাহ পর্যবেক্ষণ, এবং আরো অনেক কিছুতে পাওয়ার লোড করতে ব্যবহার করা যেতে পারে।

সোলার প্যানেল ব্যবহারের সুবিধা
  • সোলার প্যানেল আপনার শক্তি বিলের খরচ কমিয়ে দেবে।
  • নবায়নযোগ্য শক্তির উৎস হিসাবে কাজ করে।
  • আপনার সম্পত্তির মূল্য বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।
  • এই সোলার প্যানেল পরিবেশগতভাবে অত্যন্ত বন্ধুত্বপূর্ণ।
  • সৌর পণ্যের বিস্তৃত পরিসার হিসেবে কাজ করে।
  • রক্ষণাবেক্ষণের খরচ অত্যন্ত কমিয়ে দেয়।
  • বাড়ির মালিকরা শক্তি স্বাধীন হতে পারে।
  • অতিরিক্ত সৌরভ গ্রিডে বিক্রি করা যেতে পারে।
  • বিনিয়োগের উপর রিটার্নের সুবিধা।
  • সরকার কর্তৃক পুরস্কৃত হতে পারেন।
  • শক্তির সঞ্চয় এবং যতক্ষণ খুশি রাতে ব্যবহার করা যেতে পারে।
  • এই সোলার প্যানেলের দীর্ঘস্থায়ী ওয়ারেন্টি রয়েছে।
  • সোলার প্যানেলের প্রযুক্তি এখন আরো উন্নত হয়েছে।
  • সোলার প্যানেলের খরচ বছরের পর বছর আরও সাশ্রয়ী হয়ে উঠেছে।
  • আপনার সৌর প্যানেল সিস্টেম থেকে আপনার বৈদ্যুতিক গাড়ি চার্জ করার বিকল্প প্রক্রিয়াও উপলব্ধ রয়েছে।
  • ইতিহাসে সৌরশক্তিকে বিদ্যুতের সবচেয়ে সস্তা রূপ ঘোষণা করা হয়েছে।
সৌর প্যানেলের অসুবিধা
  • সৌর প্যানেল ইনস্টলমেন্ট এর জন্য প্রথমে প্রাথমিক বিনিয়োগ বেশ উচ্চ।
  • সৌর প্যানেল ইনস্টলেশনের জন্য উপলব্ধ স্থানের প্রয়োজন।
  • সবচেয়ে ভালোভাবে কাজ করার জন্য রৌদোজ্জ্বল আবহাওয়ার প্রয়োজন।
  • সোলার প্যানেল তৈরীর প্রক্রিয়া পরিবেশের ক্ষতি করতে পারে।
  • সোলার প্যানেলগুলি বেশি পরিমাণে জায়গা দখল করে ও তুলনায় কম শক্তি রূপান্তর করে।
  • এই শক্তি রাতে ব্যবহার করা যাবে না।
  • সোলার প্যানেলগুলিকে একটি স্থানে ইন্সটল করা হয় এগুলিকে অন্যত্র সরানোর সুবিধা নেই।
  • পুরানো সোলার প্যানেলের নিষ্পত্তি পরিবেশের জন্য ক্ষতিকারক হতে পারে।
  • এ শক্তি রপ্তানি সীমার জন্য আপনার শক্তি নষ্ট হতে পারে।

তবে আমাদের সাইটের তরফ থেকে ব্যক্তিগতভাবে আমরা বলতে পারি যে সৌর প্যানেলের অসুবিধার চেয়ে আরো বেশি করে সুবিধা রয়েছে।

বাংলাদেশের সবথেকে সেরা সোলার প্যানেল প্রস্তুতকারক কোম্পানিগুলি
  • সুপারস্টার গ্রুপ গ্রুপ।
  • অস্ট্রেলিয়া বাংলাদেশ সোলার পাওয়ার লিমিটেড।
  • সোলার পাওয়ার এন্ড ইলেকট্রিক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড।
  • সোলার ল্যান্ড বাংলাদেশ কর্পোরেশন লিমিটেড।
  • electro সোলার পাওয়ার লিমিটেড।
  • গ্রিনফিনিটি এনার্জি লিমিটেড।

নমস্কার বন্ধুরা আশা করছি এই পোস্টটি পড়ে আপনারা উপকৃত হয়েছেন। এছাড়াও যদি আপনার বিভিন্ন দেশের টাকার রেট বাংলাদেশি টাকায় জানতে চান এবং প্রত্যহ সোনার মূল্যের আপডেট পেতে চান তাহলে অবশ্যই আমাদের সাইট আবারো ভিজিট করবেন। এবং এই পোস্টটি আপনারা আপনাদের বন্ধু-বান্ধবদের সাথে অবশ্যই শেয়ার করবেন। ও নিচে কমেন্ট করতে ভুলবেন না।

সোলার প্যানেল ব্যবহারের সুবিধা?

সোলার প্যানেল আপনার শক্তি বিলের খরচ কমিয়ে দেবে।নবায়নযোগ্য শক্তির উৎস হিসাবে কাজ করে।আপনার সম্পত্তির মূল্য বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।এই সোলার প্যানেল পরিবেশগতভাবে অত্যন্ত বন্ধুত্বপূর্ণ।সৌর পণ্যের বিস্তৃত পরিসার হিসেবে কাজ করে।রক্ষণাবেক্ষণের খরচ অত্যন্ত কমিয়ে দেয়।বাড়ির মালিকরা শক্তি স্বাধীন হতে পারে।অতিরিক্ত সৌরভ গ্রিডে বিক্রি করা যেতে পারে।বিনিয়োগের উপর রিটার্নের সুবিধা।সরকার কর্তৃক পুরস্কৃত হতে পারেন।শক্তির সঞ্চয় এবং যতক্ষণ খুশি রাতে ব্যবহার করা যেতে পারে।এই সোলার প্যানেলের দীর্ঘস্থায়ী ওয়ারেন্টি রয়েছে।সোলার প্যানেলের প্রযুক্তি এখন আরো উন্নত হয়েছে।সোলার প্যানেলের খরচ বছরের পর বছর আরও সাশ্রয়ী হয়ে উঠেছে।আপনার সৌর প্যানেল সিস্টেম থেকে আপনার বৈদ্যুতিক গাড়ি চার্জ করার বিকল্প প্রক্রিয়াও উপলব্ধ রয়েছে।ইতিহাসে সৌরশক্তিকে বিদ্যুতের সবচেয়ে সস্তা রূপ ঘোষণা করা হয়েছে।

সোলার প্যানেল ব্যবহারের অসুবিধা?

সৌর প্যানেল ইনস্টলমেন্ট এর জন্য প্রথমে প্রাথমিক বিনিয়োগ বেশ উচ্চ।সৌর প্যানেল ইনস্টলেশনের জন্য উপলব্ধ স্থানের প্রয়োজন।সবচেয়ে ভালোভাবে কাজ করার জন্য রৌদোজ্জ্বল আবহাওয়ার প্রয়োজন।সোলার প্যানেল তৈরীর প্রক্রিয়া পরিবেশের ক্ষতি করতে পারে।সোলার প্যানেলগুলি বেশি পরিমাণে জায়গা দখল করে ও তুলনায় কম শক্তি রূপান্তর করে।এই শক্তি রাতে ব্যবহার করা যাবে না।সোলার প্যানেলগুলিকে একটি স্থানে ইন্সটল করা হয় এগুলিকে অন্যত্র সরানোর সুবিধা নেই।পুরানো সোলার প্যানেলের নিষ্পত্তি পরিবেশের জন্য ক্ষতিকারক হতে পারে।এ শক্তি রপ্তানি সীমার জন্য আপনার শক্তি নষ্ট হতে পারে।

বাংলাদেশের সব থেকে সেরা সোলার কোম্পানি গুলি?

সুপারস্টার গ্রুপ গ্রুপ।অস্ট্রেলিয়া বাংলাদেশ সোলার পাওয়ার লিমিটেড।সোলার পাওয়ার এন্ড ইলেকট্রিক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড।সোলার ল্যান্ড বাংলাদেশ কর্পোরেশন লিমিটেড।electro সোলার পাওয়ার লিমিটেড।গ্রিনফিনিটি এনার্জি লিমিটেড।

সোলার প্যানেল এর দাম ২০২২
সোলার প্যানেল এর দাম ২০২২

Related Posts

error: Content is protected !!