মালয়েশিয়া যেতে কত টাকা লাগে ও কি কি যোগ্যতা প্রয়োজন

Rate this post

নমস্কার বন্ধুরা, আশা করছি আপনারা প্রত্যেকেই ভালো আছেন অসুস্থ আছেন। বন্ধুরা আজ আপনাদের জন্য মালয়েশিয়া যেতে কত টাকা লাগে ও কি কি যোগ্যতা প্রয়োজন এই বিষয়ে বিস্তারিত সঠিক তথ্য এখানে আলোচনা করা হল। বন্ধুরা, আমরা আশা করব আপনারা পোস্টটি শেষ পর্যন্ত পড়বেন এর ফলে আপনারা মালয়েশিয়া যেতে কত টাকা লাগে ও যাওয়ার জন্য কি কি যোগ্যতা প্রয়োজন এ বিষয়ে আপনারা সম্পূর্ণ নির্ভুল জ্ঞান অর্জন করতে পারবেন, যা আপনার ভবিষ্যৎ জীবনের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয়।

মালয়েশিয়া যেতে একজন বাংলাদেশী নাগরিকের কি কি যোগ্যতা থাকা প্রয়োজন

মালয়েশিয়া যেতে হলে একজন বাংলাদেশী নাগরিকের বয়স হতে হবে ১৮-৪৫ বছরের মধ্যে। অর্থাৎ একজন বাংলাদেশী নাগরিকের বয়স যদি ১৮ থেকে ৪৫ বছরের মধ্যে হয় তবেই কিন্তু সেই নাগরিক মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য একজন যোগ্য ব্যক্তি।

আমরা অন্যান্য দেশের সাথে মিলিয়ে দেখতে পারি যে, বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই অন্যান্য দেশগুলি যদি সেই ব্যক্তির বয়স ২০ থেকে ৩৫ বছরের মধ্যে হয়ে থাকে তবেই অনুমতি দিয়ে থাকে। কিন্তু মালয়েশিয়ার ক্ষেত্রে ব্যাপারটা একটু অন্যরকম এই দেশ ৪৫ বছর পর্যন্ত অনুমতি দিয়ে থাকে। সুতরাং এই খবরটি আমাদের বাংলাদেশী বন্ধুদের জন্য অত্যন্ত খুশির একটি খবর। তবে একটি কথা মাথায় রাখা প্রয়োজন সমস্ত কোম্পানি কিন্তু ৪৫ বছর বয়স পর্যন্ত অনুমতি দিয়ে থাকে না। বেশিরভাগ কোম্পানিগুলি ৩৫-৪০ বছর বয়স পর্যন্ত নিয়োগ করে থাকে, কিন্তু যে সমস্ত ব্যক্তিদের বয়স ৪০ থেকে ৪৫ বছরের মধ্যে ওই ব্যক্তিদের একটু স্মার্ট হতে হবে অর্থাৎ দুঃখ কারিগর হওয়া প্রয়োজন বা ওই কোম্পানির প্রয়োজনীয়তা অনুযায়ী আপনারা সেখানে নিয়োগ প্রাপ্ত হতে পারবেন।

পাসপোর্ট

যাত্রীর একটি অবশ্যই বাংলাদেশী ভালিডিটি প্রাপ্ত পাসপোর্ট থাকতে হবে এবং পাসপোর্ট এর মেয়াদ অবশ্যই সর্বনিম্ন ২ বছর থাকতে হবে। অন্যান্য কিছু কিছু ক্ষেত্রে দেখা গেছে যে পাসপোর্টের মেয়াদ ১ বছর থাকলেও হয় কিন্তু মালয়েশিয়ার ক্ষেত্রে আপনার পাসপোর্ট এর মেয়াদ সর্বনিম্ন ২ বছর থাকতে হবে।

সেই জন্য যে সমস্ত বাংলাদেশি ভাইয়েদের পাসপোর্টের মেয়াদ নেই বা এখনো পাসপোর্ট করেননি তারা তাদের পাসপোর্ট এর মেয়াদ বাড়িয়ে নিন বা নতুন একটি E-পাসপোর্ট করিয়ে নিন। কারণ E- পাসপোর্ট করা সব থেকে সহজ এবং এই পাসপোর্ট এর মেয়াদ ১০ বছর পর্যন্ত করা যায়। সুতরাং এই ধরনের একটি পাসপোর্ট করলে আপনাদের আগামী ১০ বছর পর্যন্ত কোন চিন্তা করার প্রয়োজন পড়বে না।

ভ্যাকসিনেশন/টিকাকরণ

বন্ধুরা আপনারা মালয়েশিয়ায় যেতে হলে আপনাদের অবশ্যই COVID-19 এর দুইটি টি কা সম্পূর্ণ করে রাখতে হবে অর্থাৎ নিয়ে রাখতে হবে। বাংলাদেশে যে টিকা গুলি রয়েছে সেই সবগুলি টিকারই অনুমোদন রয়েছে। তো আপনি যদি মালয়েশিয়া যেতে আগ্রহী হয়ে থাকেন এখনই দুইটি টিকাকরণ করিয়ে নেবেন। টিকা নিতে হলে আপনি পাসপোর্ট বা NID কার্ড এই দুটির সাহায্যেই আপনারা টিকা নিতে পারবেন। তো যাদের NID নেই তারা অবশ্যই পাসপোর্ট দিয়ে টিকা সম্পন্ন করতে পারবেন।

উপরিউক্ত এই শর্তগুলি অর্থাৎ নিয়মগুলি যদি আপনার সম্পূর্ণ হয়ে থাকে শুধুমাত্র তবেই আপনি মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য মনোনীত বা উপযুক্ত হবেন।

মালয়েশিয়া যেতে হলে কত টাকা প্রয়োজন

বন্ধুরা আপনাদের জন্য খুশির খবর হল, মালয়েশিয়া এবং বাংলাদেশের মধ্যে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে। সেখানে উল্লেখ করা হয়েছে কর্মীর বিমান ভাড়া থেকে শুরু করে মালয়েশিয়া গিয়ে যত খরচ রয়েছে অর্থাৎ মেডিকেল ফেসিলিটি সহ যাবতীয় খরচ লেভি বা ভিসা লাগানো খরচ এই সমস্ত কিছুই নিয়োগকর্তা বা নিয়োগকারী কোম্পানি বহন করবে। এর ফলে মালয়েশিয়া যেতে বাংলাদেশী বন্ধুদের খরচ অনেক কম হবে। তবে সেই ন্যূনতম খরচ কত হবে সেটি সরকারের তরফ থেকে এখনো লিখিত কোন ঘোষণা প্রকাশ করা হয়নি।

বিগত দিনগুলিতে যেমন মালয়েশিয়া যেতে সরকার রিক্রুটিং এজেন্সি বেঁধে দিয়েছিল এই বছর কিন্তু রিক্রুটিং এজেন্সি নির্ধারিত নেই। সুতরাং এখন একমাত্র সরকারের পক্ষ থেকে ঘোষণা করা হবে কতগুলি রিক্রুটিং এজেন্সির মাধ্যমে লোক পাঠাতে পারবে বা সমস্ত এজেন্সি গুলি পাঠাতে পারবে কিনা। যখন জানুয়ারি মাসের পর থেকে যখন একটি ডিমান্ড/প্রয়োজনীয়তা বাংলাদেশে তৈরি হবে বা বাংলাদেশ থেকে কর্মী পাঠানোর জন্য প্রস্তুত হবে বাংলাদেশী এজেন্সিগুলি একমাত্র সেই সময়ই বোঝা যাবে বাংলাদেশের বাজারে সঠিক নির্দিষ্ট পরিমাণ খরচটি কত হচ্ছে মালয়েশিয়া যেতে বা সরকার নির্ধারিত খরচি-ই বা কত।

আমরা আমাদের ওয়েবসাইটের তরফ থেকে আশা করব যেন মালয়েশিয়া যেতে আমাদের বাংলাদেশী বন্ধুদের খরচটি একটি সামঞ্জস্যের মধ্যে আসে ও সর্বনিম্ন খরচ সাপেক্ষ হয়ে থাকে। মাননীয় প্রবাসী কল্যাণ বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ইমরান আহমেদ তিনি সবসময়ই খরচ কম করার দিকে রয়েছেন। আমাদের সকলের অনুরোধ রইল যেন খরচটি একেবারে নিম্ন পর্যায়ে নিয়ে আসা হয় তাহলে আমাদের বাংলাদেশী লক্ষ লক্ষ ভাইদের আর বেকার হয়ে থাকতে হবে না, তারা প্রত্যেকেই একটি উজ্জ্বল ভবিষ্যতের দিশা খুঁজে পাবে তাদের এই কাজের মাধ্যমে।

Related Posts

error: Content is protected !!